‘প্রতিটি জেলায় একটি করে ট্রেনিং ইনস্টিটিউ গড়ে তোলা হবে’

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশের মানুষকে দক্ষ ও উন্নত বিশ্বের শ্রমবাজারের
উপযোগি হিসেবে গড়ে তুলতে দেশের প্রতটি জেলায় একটি করে ট্রেনিং ইনস্টিটিউ
গড়ে তোলা হবে। ইতোমধ্যে দেশে ৭৮ টি ট্রেনিং ইনস্টিটিউট স্থাপন করা হয়েছে।
উন্নত বিশ্বের শ্রমবাজারে আমাদের শ্রমিকদের চাহিদার সাথে তাল মিলিয়ে শ্রম
উপযোগি ও দক্ষ হিসেবে গড়ে তুলতে সরকার নানাহ পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। আজ ১১
মার্চ ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয় মিলনায়তনে  বাংলাদেশ আইটি টেলেন্ট কনটেষ্ট
২০১৪ সমাপনী ও এওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রবাসী
কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার
মোশাররফ হোসেন, এমপি এ কথা বলেন।


অনুষ্ঠানে ড্যাফোডিল গ্রুপের চেয়ারম্যান মো: সবুর খান, জাইকার
রিপ্রেজেন্টিটিভ ছোয়োশি কানো এবং জাপান এম্বাসির মন্ত্রী হিরুইউকি মিনামি
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ডিআইআইটির
নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ নূরুজ্জামান। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বাংলা
বিজনেস পার্টনার, জাপানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তরু ওকাজাকি, ড. তৌহিদ
ভূইয়া, প্রধান, ডিপার্টমেন্ট অব সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং, ডিআইইউ এবং
ডিআইআইটির পরিচালক রথীন্দ্রনাথ দাস।


বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মোঃ সবুর খান বলেন, প্রতি বছর দেশের বিভিন্ন
সরকারি- বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২ মিলিয়ন গ্র্যাজুয়েট পাশ করে বের হয়
কিন্তু তাদের সবাই উপযুক্ত চাকরি পায় না।  বাংলাদেশে প্রচুর মেধাবী ও  দক্ষ
লোক রয়েছে , এ ধরনের আয়োজন  বাংলাদেশী জনগনের জন্য আন্তর্জাতিক  চাকরি
বাজারে কর্মসংস্থানের একটা বিরাট সুযোগ তৈরি করে দিবে।  তিনি বলেন, আমাদের
জনগন যদি জাপানের চাকরি বাজারের আস্থা অর্জন করতে পারে, তবে অন্যান্য উন্নত
বিশ্বে আরো দ্রুত কর্মসংস্থানের সুযোগ পাবে।


তথ্যপ্রযুক্তিখাতে দক্ষ  জনশক্তি তৈরিতে এবং ডিআইআইটি গ্র্যাজুয়েটদের
সাফল্য তুলে ধরে তিনি বলেন, জাতিসংঘের বিভিন্ন সংস্থা থেকে শুরু করে
বহুজাতিক কোম্পানীতে শীর্ষ পর্যায়ে ড্যাফোডিল ইন্সটিটিউট অব আইটি এর
শিক্ষার্থীরা কর্মরত আছে।


উল্লেখ্য যে, বাংলা বিজনেস পার্টনার (বিবিপি), জাপান এর উদ্যোগে এবং
ড্যাফোডিল ইনস্টিটিউট অব আইটির সহযোগিতায় দেশের তরুন আইটি শিক্ষার্থীদের
জাপানসহ উন্নত বিশ্বে কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে Bangladesh IT Talent
Contest-2014 -২০১৪ সম্পন্ন হয়েছে। এতে ২০ জন নির্বাচিত প্রতিযোগিকে
কর্মসংস্থানের সুযোগ দেয়ার জন্য চুড়ান্ত করা হয়। নির্বাচিতদের নিয়োগ
প্রতিষ্ঠানের উপযোগি করে গড়ে তোলার জন্য প্রফেশনাল প্রশিক্ষণ এবং জাপানী
ভাষায় দক্ষতা প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করতে হবে। নির্বাচিত প্রতিযোগিদের
এওয়ার্ড বিতরণের জন্য ডিআইইউ মিলনায়তনে সমাপনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।
প্রেস বিজ্ঞপ্তি।


নতুনখবর.কম