জামিনের জন্য আমার স্ত্রী মন্ত্রীকে ফোন করেনি

জামিনে মুক্তি পাওয়া সাংবাদিক প্রবীর সিকদার বলেছেন, তিনি কীভাবে জামিন পেলেন, তা তিনি জানেন না। তবে এ নিয়ে তাঁর স্ত্রী অনিতা সিকদার স্থানীয় সরকারমন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেনকে ফোন করেননি। বরং মন্ত্রী উল্টো তাঁকে ফোন করে জামিনের ব্যবস্থা হবে বলে জানিয়েছেন। আর জামিন পেয়েও তিনি নিজেকে নিরাপদ ভাবছেন না। কারণ, এখনো মামলাটি রয়ে গেছে।

গতকাল বুধবার জামিন পাওয়ার পর টেলিফোনে প্রবীর সিকদার প্রথম আলোর কাছে দীর্ঘ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। কীভাবে জামিন হলো জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমি অনেক কিছু কম বুঝি। হুটহাট করে যা বুঝি তা করে ফেলি। বিবেকের কাছে দায়বদ্ধ থেকে করে ফেলি। আমার বিরুদ্ধে করা মামলাটা কোন ধারায়, তা আমি জানি না। আমার কোনো আগ্রহও নেই। আজই জামিনের প্রক্রিয়ার পর শুনেছি যে তথ্যপ্রযুক্তি (আইসিটি) আইনে করা এই মামলাটি জামিন অযোগ্য। কিন্তু কীভাবে জামিনযোগ্য হলো—এ প্রশ্নের উত্তর আমার কাছে নেই।